হয়রানির শিকার দেশের মানুষজন! Facebook এর পর এবার Jio, বুধবার সকাল থেকেই দেশজুড়ে বিকল Reliance Jio-র নেটওয়ার্ক

মাত্র ২৪ ঘন্টা আগে স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিল গোটা দেশের সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট । গত সোমবার রাত ৯ টা ১৫ থেকে ভোর ৪:৩০ অবধি স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিল ফেসবুক , হোয়াটসঅ্যাপ এবং ইনস্টাগ্রাম। গোটা দেশের গ্রাহক কুলের মাথায় বাজ পড়ে গিয়েছিল একসাথে এই প্রথম সারির তিনটি নেটওয়ার্কিং সাইটের নেটওয়ার্ক ডাউন হয়ে যাবার জন্যে । সেই ঘোর কাটতে না কাটতেই মহালয়ার সকাল থেকেই গোটা দেশের রিলায়েন্স জিওর নেটওয়ার্ক ডাউন হয়ে যায়।

বুধবার সকাল থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রান্তের গ্রাহকদের ফোনে জিও নেটওয়ার্ক কাজ করছে না কোনো কোনো গ্রাহকের সকাল থেকেই কোন রকমের নেটওয়ার্ক নেই আবার কোনো কোনো গ্রাহকের মতোই থেকে তিন ঘণ্টা ধরে কাজ করছে না নেটওয়ার্ক #jioDown হ্যাশট্যাগ দিয়ে টুইটারে ট্রেন্ডিং চলছে। বর্তমানে বিশ্বের একটি অন্যতম বড় টেলিকম সংস্থাগুলো রিলায়েন্স জিও। দেশের এক বিপুল সংখ্যক মানুষ রিলায়েন্স জিওর নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে থাকে।

তবে এই দিন শুধু মাত্র রিলায়েন্স জিও নেটওয়ার্ক কাজ করছে না তা নয় এদিন সকাল থেকে অনেক জায়গায় রিলায়েন্স জিও ব্রডব্যান্ড কানেকশন ঠিকমত কাজ করছিল না । ফলে সকাল থেকেই এক বিপুল সংখ্যক গ্রাহকদের সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়েছে। বহু মানুষ দৈনিক প্রয়োজনীয় ফোন কল এবং ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারছে না।টুইটারে জিও ডাউন হ্যাশট্যাগ ইতিমধ্যে অভিযোগ শুরু হয়ে গেছে । ইন্টারনেট আউটেজ ট্র্যাকার তরফ থেকে পরিসংখ্যান অনুযায়ী সকাল ৯:৩০ থেকে ৪০০০ বেশি গ্রাহক এই সমস্যার সম্মুখীন হয়েছে।

শুধু তাই নয় এই পরিসংখ্যান অনুযায়ী যে ম্যাপ প্রকাশ করা হয়েছে তাতে যত সময় পেরিয়েছে সেই ম্যাপে দেখা গেছে নেটওয়ার্ক জনিত সমস্যায় ভুক্তভোগী গ্রাহকের সংখ্যাটাও লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েছে । বিপুল সংখ্যক জিও গ্রাহক নেটওয়ার্কের কোন কানেক্টিভিটি পাচ্ছেন না। মূলত দিল্লী, মুম্বাই ,বেঙ্গালুরু ,ইন্দোর ,রায়পুর দেশের এই সমস্ত অঞ্চলের মানুষের এই ফোনে জিও নেটওয়ার্কের সমস্যা বেশি হচ্ছে । যদিও সংস্থার তরফ থেকে সমস্যা সমাধানের করুক সূত্র পাওয়া যায়নি।

তবে দেশজুড়ে বিভিন্ন অঞ্চলে জিও নেটওয়ার্কের সমস্যা দেখা দিলেও বর্তমানে কলকাতায় এবং সংলগ্ন এলাকায় জিও নেটওয়ার্কের সেরকম কোনো সমস্যা দেখা দেয় নি । কলকাতার গ্রাহকদের পক্ষ থেকে কোনো রকম অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। তবে বর্তমানে কোন সমস্যা নেই বলে আগামী দিনে কলকাতায় যে নেটওয়ার্ক জনিত সমস্যা হবে না তার কোন গ্যারান্টি নেই। সুতরাং সে বিষয়ে এখন থেকেই সতর্ক হতে হবে। তবে ভবিষ্যতে এ ধরনের কোন সমস্যা হলে সে ক্ষেত্রে ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক অথবা অন্য কোন টেলিকম সংস্থার সিম থাকলেই সেখান থেকে নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে ইন্টারনেট এবং ফোন কল করতে হবে গ্রাহকদের।