20 এপ্রিলের পর থেকে ঘরে বসেই কিনতে পারবেন সোনা, মোদি সরকার দিচ্ছে বিশেষ সুযোগ..

একথা শুনে হয়তো আপনি অবাক হতে পারেন, তবে কথাটা সত্যি। এবার মোদি সরকার লকডাউন চলাকালীন ঘরে বসে সোনা কেনার সুযোগ দিতে চলেছে। এই বিষয়ে ভারত সরকার রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার সাথে পরামর্শ করে সার্বভৌম সোনার বন্ড ইস্যু করার স্কিম 2020-2021 জারি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। যার দরুন আগামী 20ই এপ্রিল 2020 থেকে আগামী 4 ই সেপ্টেম্বর 2020 এই ছয় মাস পর্যন্ত সার্বভৌম সোনার বন্ড ইস্যু করা হয়েছে। আর এর মাধ্যমে আপনি কমপক্ষে 1 গ্রাম সোনাতেও বিনিয়োগ করতে পারবেন।

আর এই সোভেরেন গোল্ড বন্ড স্কিমের আওতায় বিনিয়োগকারী কোন ব্যক্তি এক আর্থিক বছরে 500 গ্রাম পর্যন্ত সোনার বন্ড কিনতে পারবেন, আর এতে সর্বনিম্ন বিনিয়োগ করার পরিমাণ রাখা হয়েছে এক গ্রাম সোনার বন্ডে।এর পাশাপাশি আপনি এই স্কিমের দরুণ বিনিয়োগ করে কর বাঁচাতে পারবেন আর এই প্রকল্পের আওতায় বিনিয়োগে 2.5 পার্সেন্ট হারে সুদ মিলবে। তবে এখন প্রশ্ন হল এক্ষেত্রে আপনি কী এই সোনা কিনতে পারবেন। তবে বলে রাখি এক্ষেত্রে কোন ট্রাস্টি ব্যাক্তি, এইচইউএফ, বিশ্ববিদ্যালয় কিংবা দাতব্য প্রতিষ্ঠান কিংবা কোন ট্রাস্টের জন্যই এই বন্ড গুলির বিক্রি সীমাবদ্ধ থাকবে। আর এক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সাবস্ক্রিপশন সীমা রাখা হয়েছে প্রতি জন পিছু চার কেজি,আর ট্রাস্টের জন্য কুড়ি কেজি এবং প্রতি আর্থিক বছরে অর্থাৎ এপ্রিল মার্চ মাসে এর পরিমাণ একই হবে। আর এই 6 কিস্তির মধ্যে বিক্রি হওয়া প্রথম কিস্তি কুড়ি এপ্রিল খোলা হবে এবং 24 এপ্রিল বন্ধ হবে। আর এই বন্ড গুলিকে 28 শে এপ্রিল ইস্যু করা হবে।এক্ষেত্রে ষষ্ঠ যে কিস্তি টি করা হয়েছে সেটি 31 শে আগস্ট থেকে 4 ই সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে। তাহলে কোথা থেকে কিনে নিতে পারবেন আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী সোনা?এরজন্য আপনাকেই স্টক হোল্ডিং করপরেশন অফ ইন্ডিয়া লিমিটেড, সোভারেন গোল্ড বন্ড ব্যাংক, নির্বাচিত পোস্ট অফিস এবং বিএসই এবং এনএসই মাধ্যমে কিনে নিতে পারবেন এগুলির মধ্যে যে কোনো একটিতে আপনি এই বন্ড স্কিমে যোগ দিতে পারবেন।প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে এই বন্ডের দাম ভারত বুলিয়ান জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন লিমিটেডের 999 খাঁটি সোনা শেষে তিন দিনের জন্য দেওয়া দামের ভিত্তিতে টাকাতে স্থির করা হয়।এর পাশাপাশি আরও জানানো হচ্ছে যে RBIএর পরামর্শে ভারত সরকার অনলাইনে আবেদন ও অর্থ প্রদানের ক্ষেত্রে প্রতি গ্রামে 50 টাকা ছাড় দিয়েছে।