এবার ২০২০ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল পর্বে ভারত – পাকিস্তানের সাথে থাকতে চলেছে আফগানিস্তানও।

ক্রিকেট খেলা ভারতীয়দের সবথেকে প্রিয় খেলা বললে কোন ভুল হবে না। যদিও কিছু কিছু ব্যক্তিত্ব ফুটবল খেলা কেউ পছন্দ করে থাকেন। আর ক্রিকেট খেলা বললে তো পাকিস্তান ও ভারতের মধ্যে একটা দ্বন্দ্ব লেগেই আছে। আজ আমাদের আলোচ্য বিষয় থাকবে ক্রিকেট কে নিয়েই । আপনাদের জানিয়ে দি, ২০২০ সালে আয়োজিত অস্ট্রেলিয়াতে টি-টোয়েন্টি খেলার জন্য ছাড় পেয়ে গেল রাষ্ট্রীয় ১২ টি দল যেখানে ভারত শামিল রয়েছে। শুধু তাই নয়, আফগানিস্তানের খেলোয়াড় রাশিদ খানও এই খেলার জন্য ছাড় পেয়েছেন। আর রোমাঞ্চকর বিষয়টা হলো , হয়তো প্রথম ম্যাচে ভারত বনাম পাকিস্তান মুখোমুখি হওয়ার অনেকটাই সম্ভাবনা রয়েছে।


বিশ্ব ক্রিকেট সংস্থা আইসিসিআই গত মঙ্গলবার বিজ্ঞপ্তি জারি করে, ২০১৮ এর ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ভারত, পাকিস্তান, সাউথ আফ্রিকা , নিউজিল্যান্ড , ওয়েস্ট ইন্ডিস, আফগানিস্তান , ইংল্যান্ড , অস্ট্রেলিয়া এই আটটি দল ছাড় পেয়ে গেছে এবং আফগানিস্তানের নাম প্রথম আট এ আশায় একটি তাৎপর্যপূর্ণ দিক মনে করছে ক্রিকেট মহল। শুধু তাই নয় খুবই দ্রুত আরো ৪ টি নামও এ তালিকায় যুক্ত করা হবে । যদিও এখনো পর্যন্ত বাংলাদেশ ও শ্রীলংকার নাম উঠে আসেনি।ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেটে ৯ নম্বরে থাকা শ্রীলংকা এবং ১০ নম্বর থাকা বাংলাদেশ কোয়ালিফাই করে উঠে আসা বাকি ছয়টি গ্রুপের সাথে খেলতে হবে। এবং সেখানেই শেষে যে ৪টি টিম ছাড় পাবে সেগুলোকে তালিকাতে যোগ করা হবে।

২০২০ এর ১৮ অক্টোবর থেকে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়াতে টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড কাপের আয়োজন করা হয়েছে।বর্তমানে ভারতীয় ক্রিকেট অনেকটাই উন্নতি করেছে। এখন ভারতীয় খেলোয়াড়দের লক্ষ্য ক্রিকেট জগতে ভারতের নাম সব থেকে শিখরে পৌঁছানো। তাই খেলোয়ারদের কাছে আগত এই খেলা ভারতীয় ক্রিকেটে শিখরে পৌঁছানোর আরেক ধাপ সিঁড়ি হতে চলেছে। এবার দর্শকদেরও অস্ট্রেলীয়াতে হওয়া আগত ২০২০ এর টি-টোয়েন্টির উপর চোখ থাকবে।