মহিলাদের জন্য দুর্দান্ত সুযোগ দিচ্ছে এই সংস্থা, মাত্র ২৯ টাকা করে বিনিয়োগে এখন পাবেন ৪ লক্ষ টাকা

মহিলাদের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত করতে এসে গেছে একটি নতুন যোজনা। ভবিষ্যতে চার লক্ষ টাকা পেতে প্রত্যেকদিন বিনিয়োগ করুন মাত্র ২৯ টাকা। এলআইসি তরফ থেকে মহিলাদের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত করার জন্য এসে গেছে একটি নতুন যোজনা। এই যোজনাটির নাম “আধার শিলা” যোজনা। মাত্র ২৯ টাকা প্রত্যেকদিন যদি আপনি বিনিয়োগ করতে পারেন তাহলেই ভবিষ্যতে পেতে পারেন চার লক্ষ টাকা। এই চার লক্ষ টাকা পাওয়ার সাথে সাথেও রয়েছে অনেক কিছুর সুবিধা। মহিলাদের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত করতে এলআইসি তরফ থেকে আনা এই যোজনায় ইতিমধ্যেই মহিলাদের মধ্যে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

এই যোজনাটির নাম আধার শিলা রাখার পিছনে রয়েছে মূলত আধার কার্ড। যাদের এই আধার কার্ড রয়েছে সেই সমস্ত মহিলারাই পারবেন এই যোজনাটি করতে। এলআইসির পক্ষ থেকে ২০২০ সালের ১লা ফেব্রুয়ারি এই যোজনাটি আনা হয়েছে। যোজনাটিতে রয়েছে জীবন বীমা সঞ্চয়ের ক্ষেত্রে অনেক সুবিধা। এই পলিসির মাধ্যমে মহিলারা চাইলে একটি নির্দিষ্ট সময়ে পরে লোন নিতে পারবেন।

এবার আসুন জেনে নিই কারা আধার শিলা যোজনা করতে পারবেন। প্রথমত যে সমস্ত মহিলাদের আধার কার্ড রয়েছে তারাই শুধুমাত্র এই যোজনা করতে পারবেন। যারা এই যোজনাটি করবেন তাদের বয়স ৮ থেকে ৫৫ বছরের মধ্যে হওয়া প্রয়োজন। এই পলিসি যে কেউ ১০ বছর অথবা ২০ বছরের জন্য করতে পারবেন, তবে সেই ক্ষেত্রে মাথায় রাখতে হবে যে যার বয়স ৭০ বছরের উপরে যেন না হয়। এই পলিসিটা শুরু করার ৫ বছর পর যদি কেউ মারা যান তবে বীমা অমান্যকারীকে বীমার সমস্ত টাকা দেওয়া হবে তার সঙ্গে দেওয়া হবে বোনাসও।

এবার আসুন জেনে নিই কত টাকা এই যোজনায় প্রিমিয়াম হিসেবে দিতে হবে। কোন মহিলার বয়স যদি ৩০ হয় তবে সে ২০ বছরের জন্য এই যোজনাটি করতে পারবেন। তাকে প্রত্যেকদিন ২৯ টাকা করে জমা দিতে হবে। মেয়াড শেষ হয়ে যাওয়ার পর আমানতকারী চার লক্ষ টাকা পাবে। ২ লক্ষ টাকা বীমার জন্য নিশ্চিত অর্থ এবং ২ লক্ষ টাকা বোনাস। এই বিমার টাকা মাসিক, ত্রৈমাসিক অথবা অর্ধ বার্ষিক, বার্ষিক নিয়মে জমা দিওয়া যাবে।

এই পলিসির মেয়াদ শেষ হয়ে গেলে পুরো টাকাটাই আমানতকারী একসঙ্গে তুলতে পারবেন অথবা যদি বীমাকারী চান মাসে মাসে তুলতে সেটাও করা যাবে। এই যোজনা ক্ষেত্রে সবথেকে বড় একটি ব্যাপার হলো এই বীমার টাকা পাওয়ার পরে কোনরকম ট্যাক্স কাটা হবে না।