আফগানিস্তানে বেচে দেওয়া হচ্ছে মহিলাদের, বিশ্বনেতাদের কাছে সাহায‍্যের আর্জি অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীর

দীর্ঘ ২০ বছর পর তালিবানদের দখলে পুরোপুরি চলে গেল আফগানিস্তান। দখলে আসার পর থেকেই আলিবানদের নতুন শাশনে তঠস্ত মানুষজন। প্রেসিডেন্ট হাউসে নির্দ্বিধায় বুক ফুলিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে একাধিক সন্ত্রাসবাদী। তালিবানদের মাত্র দুদিন শাশনে এসেই ভেঙে পড়েছে দেশের শাশনব্যবস্থা। ভেঙে পড়েছে একই সঙ্গে শিক্ষা ব্যবস্থা ও মহিলাদের উপর নানা ধরনের ফতেয়া জারি। এই নির্মম শাশনে স্তম্ভিত অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী।

অভিনেত্রী নিজের ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন, তার একাধিক বক্তব্য সাথে তিনি ভীষণ মর্মাহত আফগানিস্তানের মহিলাদের বর্তমান পরিস্থিতির উপর। রিয়া তার পোস্ট এর মাধ্যমে অনুরোধ করেছেন বিশ্বের বড় বড় শক্তিশালী নেতাদের এই বিষয়ে এগিয়ে আসার জন্য। অভিনেত্রী তার সোশ্যাল মিডিয়ার পোস্টে লিখেছেন, ‘ ‘সারা বিশ্বে যখন মহিলারা সমান বেতনের অধিকারের জন‍্য লড়ছে, আফগানিস্তানে তখন বেচে দেওয়া হচ্ছে মহিলাদের।

তারাই এখন বেতন হয়ে গিয়েছে। আফগানিস্তানে মহিলা ও সংখ‍্যালঘুদের অবস্থা দেখে ব‍্যথিত। বিশ্ব নেতাদের রুখে দাঁড়ানোর আবেদন জানাচ্ছি। মহিলারাও মানুষ।’ দুদিন আগেই তালিবানদের হাতে এসেছে আফগানিস্তানের শাশনের ভার। এর মধ্যেই শুরু হয়ে গেছে আফগানিস্তানে বিভিন্ন মর্মান্তিক ঘটনা। দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন প্রেসিডেন্ট আশরফ গনি।সম্প্রতি একটি ভিডিও ফুটেজ বড্ড বেশি শেয়ার হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

সেই ভিডিও ফুটেজ এর মাধ্যমে দেখা যাচ্ছে, আফগানিস্তান থেকে নিজেদের প্রাণে বেঁচে পালাতে চাইছেন বহু মানুষ। এয়ারপোর্ট থেকে চলতি বিমানে উঠে ঝুলতে ঝুলতে যাচ্ছে বহু মানুষ। ইতিমধ্যেই মাঝ আকাশে চলন্ত বিমান থেকে পড়ে বহু মানুষের মৃত্যু হয়েছে। গোটা বিশ্ববাসী এই বিষয় নিয়ে স্তম্ভিত সকলেই অনুমান করছেন ২০ বছর আগের সেই ভয়ানক দিন আবারো ফিরে আসতে চলেছে তালিবানদের শাসন ব্যবস্থায়।

বিশেষ করে মহিলাদের উপর বেশ কিছু ফতেয়া জারি করা হয়েছে ইতিমধ্যেই। শোনা যাচ্ছে মহিলাদের বহু নিয়মের মধ্যে বেঁধে দেওয়া হয়েছে। তারা পড়তে পারবে না তাদের নিজেদের মনের মত পোশাক। তাদের সবসময়েই পরে থাকতে হবে, শরীর চাপা পোশাক সাথে পা খোলা জুতো পড়া বারণ হয়ে গেছে। পুরুষ ছাড়া বাড়ির বায়রে বেরোনো অপরাধ বলে ঘোষণা করেছে তিলিবানরা।

আফগানিস্তানের এক সংবাদ মাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, তারা বলছেন অবিবাহিত মেয়েদের বিয়ের প্রস্তাব দিচ্ছে তালিবানরা সেই প্রস্তাব নাকোচ করলে তুলে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে মেয়েদের। এই পরিস্থিতি যেন আর খারাপ না হয় তার আর্জি জানিয়েছেন অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী।