বেরিয়ে এল 2019 এর লোকসভা নির্বাচনের নতুন সার্ভে। পুরোপুরি পরিষ্কার হয়ে গেল 2019 এর ছবি।

হাতে গোনা আর মাত্র কটা দিন, কিছুদিন পরেই হতে চলেছে 2019 এর লোকসভা নির্বাচন। এই লোকসভা নির্বাচনে ভারতের অনেকগুলি রাজনৈতিক দল অংশগ্রহণ করে। তাদের মধ্যে কোন দল শাসনভার পাবে তা এই লোকসভা নির্বাচনই ঠিক করবে। আর এই নির্বাচনের ফল কি হবে তা নির্ভর করে সাধারণ মানুষের ভোটের উপর। লোকসভা নির্বাচন আর বেশি দেরি নেই তাই দেশের সবচেয়ে বৃহৎ হিন্দি সংবাদ মাধ্যম তাদের সার্ভে করে ফেলল। দেশের সংবাদ মাধ্যম সব লোকসভা সিট অর্থাৎ 543 টি সিটের ওপর তাদের সার্ভে করেছে। এবং সার্ভের ফলাফলে এটা স্পষ্ট হয়েছে যে ভারতীয় জনতা পার্টি এবং কংগ্রেসের মধ্যে কঠিন লড়াই হতে চলেছে।

সার্ভের ফলাফলে দেখা গেছে লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি তে থাকবে 34 শতাংশ ভোট আর অপরদিকে কংগ্রেসের ঝুলিতে যেতে পারে 25 শতাংশ ভোট। আর যদি আসন সংখ্যার দিক থেকে বিচার করা হয় তাহলে, এবারে লোকসভা নির্বাচনে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পথ চেয়ে বিজেপি। বিজেপির দলের থাকছে 276 টি আসন এবং কংগ্রেসের দলে থাকছে 112 টি আসন, আর বাকি যে 125 টি আসন রইল সেগুলি অন্যান্য দলগুলি পাবেন। সার্ভের ফলাফল থেকে এটা স্পষ্ট বুঝতে পারা যাচ্ছে যে 2019 এর জন্য আবার ক্ষমতায় আসতে চলেছে ভারতীয় জনতা পার্টি। অর্থাৎ নরেন্দ্র মোদী আবার প্রধানমন্ত্রীর আসর বসতে চলেছে।এই ফলাফল যেমনি স্পষ্ট করে বুঝিয়ে দিচ্ছে যে দেশে আবার ক্ষমতায় আসতে চলেছে বিজেপি সরকার তেমনি এটা পরিষ্কার হয়ে গেছে যে দেশের সাধারণ মানুষের হাত বিজেপি’র ওপর রয়েছে।

এর কারণ হলো দেশে অনেক সরকার এসেছে গেছে কিন্তু কোন সরকার জনগণের উন্নতির কথা ভেবে কোন বড় পদক্ষেপ নেয়নি। সবাই ভোটে জেতার পর নিজের স্বার্থটাই দেখে। 2014 সাল থেকে বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসার পর দেশের জনগণের স্বার্থে একের পর এক ভালো সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তেমনি দেশের অর্থনৈতিক দিক দিয়ে অনেকটা এগিয়ে গেছে।তবে এবছর লোকসভা নির্বাচনে দেশের মানুষ অনেক নিত্য নতুন জিনিস দেখতে পাবেন। কারণ সমীক্ষায় বলছে এবারের লোকসভা নির্বাচন ভারতবর্ষের ইতিহাসে সব থেকে কঠিন নির্বাচন হতে চলেছে। ইতিমধ্যেই সমস্ত রাজনৈতিক দল জোর কদমে কাজ চালাচ্ছে,প্রচার শুরু করে দিয়েছে। আর এর মাঝেই সংবাদমাধ্যম তাদের সার্ভের ফল প্রকাশ করে দিয়েছে। আর এটাই পরিষ্কার হয়ে যাচ্ছে যে এবার দেশে ফের মোদি ঝড় আসতে চলেছে।

একদিকে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী আর অপরদিকে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দুজনেই চরম মুহূর্তে ভোটের প্রচার শুরু করে দিয়েছে। দুটি দলের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে এবার লোকসভা নির্বাচনে,তাই কেউ একটু জায়গা ছাড়তে রাজি নন। যত ঠান্ডা বাড়ছে রাজনৈতিক উত্তেজনা ততই বাড়ছে। কিন্তু যতোই হোক দেশের মানুষদের মনে নরেন্দ্র মোদী আলাদা জায়গা করে নিয়েছে। আর এটা বিজেপির দিক থেকে অনেক পজিটিভ দিক।

Related Articles

Back to top button