এই রাজ্যে আসতে চলেছে নতুন আইন এবার থেকে মা- বাবাকে রাখা যাবে না বৃদ্ধাশ্রমে

প্রতিটা মানুষের বয়সকালে বৃদ্ধাশ্রমের যাওয়াটা খুব কষ্টের ব্যাপার। নিজের তৈরি সংসার ছেড়ে সজ্ঞানে একজন মানুষকে যখন বৃদ্ধাশ্রমে যেতে হয় তাঁর মানসিক পরিস্থিতি যে কতটা ভেঙে পড়ে সেই মুহূর্তে হয়তো তাঁর পরিবার-পরিজনরা বুঝেও বুঝেনা। বৃদ্ধাশ্রম শব্দটা উচ্চারণ এর সাথে সাথেই আমাদের মনে পড়ে যায় নচিকেতার সেই বৃদ্ধাশ্রম গানটির কথা। যেখানে প্রানের থেকে প্রিয় নিজের ছেলের কে ছেড়ে একটি মা এসেছে বৃদ্ধাশ্রমে। সব সময় তাঁর নিজের পুত্রের কথা মনে পড়ে।

কোন কোন Mobile Number রেজিস্টার রয়েছে আপনার Aadhaar Card-র সাথে, জানতে পারবেন এই সহজ পদ্ধতিতে

এবার এই সমস্ত বাবা আমাদের চোখের জল মোছাতে সক্রিয় হয়েছেন অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা।এক সাংবাদিক বৈঠকে তিনি জানিয়েছেন, , “যে সব বৃদ্ধ-বৃদ্ধা নিরাশ্রয়, যাঁদের সন্তান নেই- তাঁরাই শুধু বৃদ্ধাশ্রমে থাকতে পারবেন। কিন্তু ছেলেমেয়ে বাইরে চাকরি করে আর মাসে টাকা পাঠিয়ে বাবা-মাকে বৃদ্ধাশ্রমে রেখে দেবে, তেমনটা অসমে চলতে দেওয়া যায় না। এ নিয়ে কড়া আইন আনা হবে।” বর্তমান সময়ে অসমে বেশ ক’টি বৃদ্ধাশ্রম মাথাচাড়া দিয়েছে। বর্তমান সময়ে এটা মোটেই সুখকর ব্যাপার নয়। বৃদ্ধাশ্রম

এর আগে বৃদ্ধ বাবা মায়েদের জন্য বড় ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিল অসম সরকার। নিয়ম করা হয়েছিল কোনো সরকারি চাকরিতে কর্মরত ব্যক্তি তাঁর বাবাকে বা মাকে বৃদ্ধ বয়সে যদি না দেখেন তাহলে তাদের মাইনে থেকে টাকা কেটে দেওয়া হবে তাঁর বাবা-মায়ের অ্যাকাউন্টে।

বৃদ্ধ বয়সে বাবা মায়ের একমাত্র সম্বল হল তাঁর সন্তান। কিন্তু এখনকার সেই বাবা-মায়েদের ঠাঁই হয় বৃদ্ধাশ্রমে। এবার বৃদ্ধ বাবা মায়েদের কথা ভেবেই বড় ধরনের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন হিমন্ত। আর এই ধরনের কড়া আইন বৃদ্ধ মা-বাবাদের জীবন বদলে দিতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞ মহল।