গরম চায়ের সাথে অল্প আদা মিশিয়ে খেলে মিলবে ১৩ টি সমস্যা থেকে সমাধান

বাড়িতে আমিষ নিরামিষ যা রান্নাই হোক তাতে একটু আদা থাকবেই। আদার গন্ধেই যেন প্রাণ৷ জুড়িয়ে যায়। গলা খুসখুস থেকে সর্দি কাশি মুখে রাখতে হবে এক টুকরো আদা। আদা শুধু খাবারের স্বাদ বাড়ায় তাই নয়, রয়েছে এর অনেক ঔষধি গুনাগুন। সেগুলো কি আসুন জেনে নেওয়া যাক।

আদা হার্ট ভালো রাখে এবং রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে। নিয়মিত আদা চা পান করলে রক্ত জমাট বাঁধতে পারেনা। দেহে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি পায়। কোলেস্টেরল স্বাভাবিক থাকে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তোলে ।

 ব্লাড সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখে- যাঁদের টাইপ ২ ডায়াবেটিস আছে, তাঁদের জন্য প্রতি দিন আদা চা পান করার সুফল অনেক। কারণ এই চা এইচবিএ১সি নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। মস্তিষ্ক সচল রাখে এবং অ্যালঝাইমারের মতো রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করে- ক্রনিক ইনফ্লেমেশন এবং অক্সিডেটিভ স্ট্রেস মানুষকে আরও বুড়ো করে তোলে। আর এটাই পরবর্তীকালে অ্যালঝাইমার নামক অসুখে রূপান্তরিত হয়। আদার মধ্যে উপস্থিত বায়ো-অ্যাকটিভ উপাদান এবং অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট মস্তিষ্কের এই ইনফ্লেমেশন রোধ করে মস্তিষ্ক সচল ও সক্রিয় রাখে।

এই মুহূর্তে পরিস্থিতিতে আমাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তোলা অত্যন্ত আবশ্যক। রয়েছে এন্টিঅক্সিডেন্ট, যা আমাদের দেহে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তোলে। একইসঙ্গে উষ্ণ উষ্ণ আদা চা পান করলে, পেট অনেকক্ষণ ভর্তি থাকে। ফলে অতিরিক্ত খাওয়ার কারণে মেদ জমতে পারে না।

নাক বন্ধ হয়ে গেলে গরম জলে আদা ফেলে তার স্টিম নেওয়া যেতে পারে। যাদের প্লেনে উঠলে বা পাহাড়ি রাস্তায় চড়লে মাথা ঘোরে, তাদের আদা চা পান করলে উপশম হয়। টাইপ টু ডায়াবেটিস থাকলে আদা চা সুফল দেয়।

ব্যাঙ্কের সুরক্ষার অভাবে টাকা জালিয়াতি হলে গ্রাহককে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে, বড়ো সিদ্ধান্ত জাতীয় গ্রাহক কমিশনের

মস্তিষ্ক সচল রাখে এবং অ্যালজাইমার এর মত রোগের বিরুদ্ধে লড়াই করে। আদার মধ্যে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ইনফ্লামেশন রোধ করে। বদহজমের কারণে যদি পেট ব্যথা করে কিংবা কারো যদি কোষ্ঠকাঠিন্য থাকে তাহলে আদা চা অত্যন্ত উপকার হয়।

অনেক মহিলাদের ক্ষেত্রে ঋতুস্রাবের সময় তলপেটে ব্যথা হয় এই সময়ে আদা চায়ের সঙ্গে মধু মিশিয়ে খেলে আরাম পাওয়া যায়। তাছাড়া গরম জলে আদা দিয়ে সেই জলে তোয়ালে ভিজিয়ে তলপেটে মালিশ করলেও আরাম হয়।

প্যানক্রিয়াস এবং কোলন ক্যান্সারের দারুন কাজ দেয় আদা চা। আদা চায়ের মধ্যে থাকা এমাইনো অ্যাসিড ভিটামিন এবং মিনারেলস দেহে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে এবং কার্ডিওভাসকুলার সমস্যা দূর করে।

ব্যথা যন্ত্রণায় পেনকিলার না খেয়ে মাথাব্যথা গলাব্যথা ঋতুস্রাবের ব্যথার ক্ষেত্রে আদা চা উপশম দেয়।