রাস্তায় গাড়ি চালানোর আগে জেনে নিন আপনার মৌলিক অধিকারগুলি…

১ ই সেপ্টেম্বর এর পর থেকে নতুন ট্রাফিক নিয়ম জারি হবার পর থেকেই যে হারে জরিমানা বেড়েছে তাতে সাধারণ মানুষের বুকে আঘাত লেগেছে বললেই চলে। ট্রাফিক পুলিশ আপনাকে রাস্তাতে ধরার ভয়ে আপনি আতঙ্কিত হয়ে উঠেছেন ! আপনাকে ভারী জরিমানা করা হলে এবং আপনি তা না দিলে আপনাকে কড়া শাস্তির সম্মুখীন হতে হবে। আপনাদের জানিয়ে দি নতুন একাধিক ট্রাফিক নিয়ম এর সংক্রান্ত কিছু বিশেষ তথ্য যেগুলো আপনাদের অবশ্যই জেনে রাখা দরকার।

রাস্তায় বেরোনোর আগে অবশ্যই ট্রাফিক আইন মেনে গাড়ি চালাবেন, আর যদি আপনি ট্রাফিক আইন না মানেন তাহলে আপনাকে অবশ্যই ট্রাফিক পুলিশের সম্মুখীন হতে হবে । রাস্তায় বেরোনোর আগে অবশ্যই এগুলিতে একবার নজর দিয়ে যান, জরিমানা করার জন্য ট্রাফিক পুলিশের কাছে একটি বই বা ই – চালান মেশিন থাকবে কিন্তু এটি যদি ট্রাফিক পুলিশের কাছে না থাকে তাহলে আপনার কাছে জরিমানা নিতে পারবে না।


বাইরে বেরোনোর আগে নিজের কাছে সর্বদায় গাড়ির দরকারি কাগজপত্র গুলো রাখবেন , কারণ এগুলো আপনার কাজে লাগতে পারে। যদি কোন ট্রাফিক পুলিশ আপনার গাড়ি থামিয়ে আপনার কাছে কাগজপত্র দেখতে চাই তাহলে অবশ্যই সব কাগজপত্রগুলো দেখাবেন। কিন্তু এ কথা মনে রাখবেন যে, ১৩০ নং অনুচ্ছেদ অনুযায়ী আপনি গাড়ির কাগজপত্র পুলিশের হাতে জমা নাও দিতে পারেন ,কারণ নিয়ম অনুযায়ী আপনি কেবল কাগজপত্রগুলো দেখাতে পারেন তবে আপনার যদি ইচ্ছে না হয় তবে আপনি জমা নাও দিতে পারেন।

রাস্তায় গাড়ি চালাতে চালাতে যদি কোন ভুলের জন্য আপনি পুলিশের কাছে ধরা পড়েন তাহলে তর্ক একবারই করবেন না, বরং তাকে বোঝানোর চেষ্টা করবে যে সেই ভুল আর হবে না কোনদিন। অনেকেই এটা ভাবেন যে পুলিশকে টাকা দিয়ে পার হয়ে যেতে পারবেন কিন্তু এরকম কখনোই করতে যাবেন না কারণ সরকার এই নীয়মটি জনসাধারণের সুরক্ষার জন্যই লাগু করেছেন।আপনি যদি লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি নিয়ে রাস্তায় বের হন তাহলে পুলিশ আপনাকে অবশ্যই আটক করবে ।

আপনাকে জরিমানার কাগজপত্রের সঠিক কপি না দিয়ে পুলিশ আপনার ড্রাইভিং লাইসেন্স জমা নিতে পারবে না। আপনাকে অবশ্যই মনে রাখতে হবে গাড়ি চালানোর সময় মোবাইল ফোন অথবা মদ জাতীয় নেশা দ্রব্য পান করে গাড়ি চালালে পুলিশ আপনার ড্রাইভিং লাইসেন্স আটক করতে পারে। কোন ভুলের জন্য ট্রাফিক পুলিশ যদি আপনাকে আটক করে তাহলে ২৪ ঘন্টার মধ্যে আপনাকে ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে হাজির হতে হবে অথবা যদি কোন ট্রাফিক পুলিশ কোন কারণবশত আপনাকে হেনস্তা করে আপনি তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করতে পারেন।


যদি আপনার নামে কোন চালান জারি হয়ে থাকে তাতে অবশ্যই দেখে নেবেন কোন আদালতে তার বিচার হবে, এবং তার নাম ও ঠিকানা দেওয়া আছে কিনা। এর পাশাপাশি চালানে কবে আপনার দ্বারা ভুল হয়েছে সেই তথ্য ,বিচারের তারিখ,গাড়িটির বিবরণ।

Related Articles

Back to top button