গ্রেফতার হলো দেশের আরো এক লুটেরাকে, ৮১০০ কোটি টাকার ব্যাঙ্ক প্রতারণা করে পালিয়েছিল ..

ভারতীয় এজেন্সি দের জোরে এবার নীরব মোদির মতো ভারত থেকে পালিয়ে যাওয়া আরো এক ব্যাক্তিকে ধরে ফেলা হলো। গুজরাটের ফার্মা কম্পানির স্টেলিং বায়োটেক মামলাটির আরোপি হিতেশ প্যাটেলকে আলবানীয়তে গ্রেফতার করা হয়েছে। স্টেলিং বায়োটেক মামলাটির জন্য ভারতীয় এজেন্সিরা বিগত কয়েক বছর ধরেই  হিতেশ প্যাটেল এর খোঁজে ছিল। প্রবর্তনের নির্দেশালয় এর সূত্র অনুসারে, হিতেশ প্যাটেল  কে ১১ই মার্চ  রেড কর্নের এর তরফ থেকে একটি নোটিশ জারি করা হয়েছিল। অপর দিকে  ২০ মার্চ আলবানিয়াতে   রাষ্ট্রীয় ব্যুরো তিরানার দ্বারা তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ভারতীয় এজেন্সিরা ইডি দ্বারা বিশেষভাবে পিএমএলএ আদালতে অভিযোজন এর জন্য তার ওপর আরোপ লাগাই।

ইডি সূত্র অনুসারে জানতে পারা যাচ্ছে হিতেশ কে খুব শীঘ্রই ভারতের হাতে হস্তার্পণ করা হবে বলে আশা করা হচ্ছে। তবে আপনাদের জানিয়ে দিই যে, হিতেশ প্যাটেল এর ওপর  ৮,১০০ কোটি টাকার লেন্ডিং এর আরোপ লাগানো হয়েছে। বায়টেক মামলাটি কি?আসলে   হিতেশ প্যাটেল   ব্যাংক থেকে ৮,১০০ কোটি টাকার একটি  বড়ো মাপের লোন  নেই ,এবং তারপরই তিনি দেশ থেকে পালিয়ে যান ,সেইসঙ্গে স্টেলিং  গ্রুপের চারজন প্রোমোটার ও দেশ ছেড়ে পালিয়ে যান। এই অপরাধীদের মধ্যে হিতেশ প্যাটেল সহিত নিতিন সন্দেশ্বরা, রাজভূষণ দীক্ষিত , চেতন সন্দেশ্বরা,দীপ্তি সন্দেশ্বরা এবং বিচলিয়া গগন ধবন ও এতে যুক্ত ছিলেন। স্টাইলিং গ্রুপের কোম্পানির মধ্যে স্টাইলিং বায়োটেক লিমিটেড, পিএমটি  মাসিনস লিমিটেড, স্টাইলিং সেজ এন্ড ইফরা লিমিটেড, স্টাইলিং পটে লিমিটেড, স্টাইলিং অয়েল রিসার্চ লিমিটেড, এছাড়াও ১৭০ টির ও বেশি সেল কম্পানি এতে উপস্থিত আছে।

নিরব মোদী কে গ্রেফতার করা হল:- আপনাদের জানিয়ে দিই, ভারতীয় এজেন্সিদের জোরে ব্রিটেনের পুলিশ বুধবার পিএম স্ক্যাম এর অপরাধি নিরব মোদী কে গ্রেফতার করেছে। অন্যদিকে ওয়েস্টমিনিস্টার ম্যাজিস্ট্রেট  এর জেলা বিচারপতি মেরি মাল্লন এর আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়  সেখানে তার জামিনের আর্জিকে খারিজ করে দেওয়া হয় এবং হিতেশ প্যাটেল কে ২৯ মার্চ পর্যন্ত হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কোটের এই সিদ্ধান্তের পর তাকে দক্ষিণ – পশ্চিম লন্ডনের বান্ডসশর্থ জেলে রাখা হয়েছে।

Related Articles

Back to top button