শাহরুখ পুত্র আরিয়ান এবং শ্রীদেবী কন্যা খুশী কাপুরের কাছে এলেন এক ভিক্ষুক। তারপর উনারা যা করলেন …

আমরা ছোটো থেকে এই শিক্ষায় পেয়ে আসছি যে আমাদের আশেপাশে যেসমস্ত গরিব মানুষজন রয়েছেন তাদের অন্তত্য কিছু পরিমান হলেও সাহায্য করা উচিৎ। এতে আমাদের কাছে যা আছে সেটা কমে যায় না বরং কাউকে সাহায্যদান করলে জীবনে অনেক ধার্মিক কাজ হয়। কিন্তু আমাদের আশেপাশেই আবার এমন অনেক লোকজন রয়েছেন যাদের কাছে সম্পত্তি রয়েছে প্রচুর কিন্তু তা সত্ত্বেও তারা কাউ কে ভালো মন থেকে সাহায্য করতে পারেন না। কিন্তু যদি কারুর কাছে ভালো মন থাকে তাহলে তার কাছে যেমনই সম্পত্তি থাকুক না কেন সে মানুষ কে সাহায্য করার দিক দিয়ে কখন পিছু পা হয় না। আমাদের আশেপাশে এইরকম যে কত দাতব্য আছেন সেটা কারুরই জানা নেই।

কিন্তু আপনারা হয়তো জানেন না যে, এমন অনেক জন নায়ক রয়েছেন যারা এমনি তে হয়তো অনেক গরিব কে দান করে থাকেন। কিন্তু তাদের সামনে যখন একটি ভিক্ষুক এসে হাজির হয় এবং কিছু সাহায্য চাই তখন তারা সবসময় সাহায্যদান করতে পারেন না। অনেক সময় কিছু টাকা দিয়ে সাহায্য করেন আবার কখন খালি হাতেই তাদের ফেরৎ পাঠান। কিন্তু তার মানে এটা নয় যে গরিব দের কষ্ট দেখেও উনারা সাহায্য করতে চান না, অনেক সময় এটাও হয় যে উনারা সাহায্যদান করতে চাইলেও তাদের কাছে খুচরো টাকা না থাকার কারনে ভিক্ষুকদের খালি হাতেই ফেরৎ আসতে হয়।

আজ আপনাদের সাথে এমনই এক বলিউড সন্তানের কথা আলোচনা করতে যাচ্ছি, যার কথা শুনে সত্যি আপনারা অবাক হয়ে যাবেন। আপনাদের জানিয়ে রাখি যে, Friendship Day এর দিনে বেশ কয়েকজন বলিউডের কিডস্ রা এসেছিলেন আনন্দ করতে। তারা নানারকম নাচ-গান করার মধ্যে নিজেদের মধ্যে আনন্দ মজা করছিলেন। সেই সকলেই মধ্যে ছিল বলিউড বাদশা অর্থাৎ শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান এবং শ্রীদেবীর কন্যা খুশী কাপুর। সেই সময় দুজন ক্ষুধার্ত বাচ্চা তাদের দুজনের কাছে চলে আসে। সেই সময় অনেক মিডিয়া সেখানে উপস্থিত ছিলেন তার ফলে পুরো বিষয়টি তাদের ক্যামেরায় বন্দি হয়ে যায়। তারপর দেখা যায় যে, সেই ক্ষুধার্ত বাচ্চাটি এসে যখন শারুক পুত্রের কাছে কিছু টাকা চাই তখন শারুক পুত্র আরিয়ান তার দিকে তাকিয়ে হাসেন এবং নিজের পকেটে হাত দেন টাকা বের করার জন্য। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত তার কাছে দেওয়ার মত টাকা ছিল না। তার ফলে আরিয়ানের পাশে থাকা তার দেহরক্ষী সেই বাচ্চাটিকে কিছু টাকা দেন। এতে খুব সহজেই বোঝা যাচ্ছে যে, শারুক খানের মত একজন বলিউড কিং এর ছেলে তার বাবার এই ভালো গুন গুলি পেয়েছেন।

অপর দিকে অন্য আরেক পার্টিতে এসেছিলেন শ্রীদেবীর কন্যা খুশি কাপুর। তার সাথে সেই পার্টি তে উপস্থিত ছিলেন চক্কী পান্ডের মেয়ে আহানিয়া পান্ডে, সঞ্জয় কাপুরের মেয়ে শায়না কাপুর এবং নওয়াৎ খান যিনি হলেন সোহেল খানের ছেলে। পার্টি শেষে যখন খুশী কাপুর সেই হোটেল থেকে বের হন তখন একটি বাচ্ছা মেয়ে তার দিকে এগিয়ে আসতে থাকেন। কিন্তু তার কাছে কিছুই নগদ টাকা ছিল না তারফলে সেই বাচ্চা মেয়েটিকে কিছুই দেননি উনি। কিন্তু গাড়িতে বসে উনি সেই বাচ্চাটিকে বাই জানিয়েছিলেন।
#অগ্নিপুত্র