দেখুন দেশের সবচেয়ে ছোট ব্যবসায়ী যে কিনা অষ্টম শ্রেণী পাস করে রোজগার করছে লাখ টাকা

আমাদের ভারতবর্ষ এমন একটি দেশ, যেখানে প্রতিভার কোন অভাব হয়না। কিন্তু প্রতিনিয়ত আমাদের দেশে বেশ কয়েক লক্ষ মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে থাকে বলে এই প্রতিভা অচিরেই হারিয়ে যায়। তেমনই একটি শিশুর কথা আজ আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করব যে খুব কম বয়সে একজন সফল ব্যবসায়ী হয়ে উঠেছে। শিশুটির নাম তানিশ মিত্তল। কম্পিউটারের প্রতি ভালোবাসা ছোটবেলা থেকেই ছিল এই শিশুটির। অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করে পড়াশোনা ছেড়ে দেয় এই শিশুটি। এরপর কম্পিউটারের প্রতি তার আগ্রহ এতটাই বেড়ে যায় যে কম্পিউটারের সমস্ত পার্টস নিয়ে সে নাড়া ঘাটা করতে শুরু করে।

এই ছেলেটি ২০০৫ সালের ৭ নভেম্বর জন্মগ্রহণ করে। ছোটবেলায় পড়াশোনা ছেড়ে দিয়ে কম্পিউটারে ওয়েব ডিজাইনিং- এর ফটোশপের কাজ শুরু করে সে। মাত্র ১০ বছর বয়সে পিজি ডিপ্লোমা স্তরের কোর্স করে ফেলে এই ছেলেটি। ছেলেটির বাবা নিতিল মিত্তাল একজন নামকরা সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার। কম্পিউটার থেকেও তীক্ষ্ণ বুদ্ধি হওয়ার দরুন এই ছেলেটি মাত্র ১০ বছর বয়সে একটি কোম্পানির প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও হিসেবে যোগদান করেছে।

শিশুটি যখন পড়াশোনা ছেড়ে দেয়, তার বাবা তাকে সম্পূর্ণভাবে সহযোগিতা করে। পড়াশোনা ছেড়ে দেবার পর বিভিন্ন ধরনের সফটওয়্যার তৈরি করা শুরু করে এই ছেলেটি। পাশাপাশি নিজেকে ইথিক্যাল হ্যাকিং এবং ডিজাইনিং ইতারি শেখার জন্য প্রস্তুত করে। মাত্র নয় বছর বয়সে ইন্টারনেটের মাধ্যমে কম্পিউটার অ্যানিমেশন, ভিডিও এডিটিং এবং ফটোশপে তৈরী করার দক্ষতা অর্জন করে ছেলেটি।

তানিশের বয়স এতটাই ছোট ছিল, যে সে কোন বড় স্কুলে ভর্তি হতে পারেনি। তবে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হয়ে কম্পিউটার নিয়ে পড়াশোনা করে সে। তার প্রতিভা দেখে অবাক হয়ে যান প্রতিষ্ঠানের সকলে। এইভাবে আজ এই ছোট্ট ছেলেটি একটি কোম্পানির সিইও হিসেবে নিযুক্ত হয়েছে এবং পরিবারের এবং দেশের নাম উজ্জ্বল করেছে।