নিষিদ্ধ ওষুধ সেবন করায় পৃথ্বী শ’কে আট মাসের জন্য সাসপেন্ড করল বিসিসিআই..

বড় ধাক্কা খেলেন ভারতের উদীয়মান ওপেনার পৃথ্বী শ।ডোপ টেস্টে ব্যর্থ হওয়ায় 8 মাসের জন্য সাসপেন্ড হলেন প্রতিশ্রুতিমান ক্রিকেটার পৃথ্বী শ। বিসিসিআই তরফ থেকে জানানো হয়েছে পৃথ্বী শ টারবুটালাইন’ কাশির ওষুধ খেয়েছিলেন যা নিষিদ্ধ ওষুধের তালিকায় পড়ে। আর এই নিষিদ্ধ ওষুধ সেবন করায় সাসপেন্ড করা হয়েছে মুম্বই ক্রিকেট সংস্থার নথিভূক্ত ক্রিকেটার পৃথ্বীকে। ভারতীয় বোর্ডের অ্যান্টি ডোপিং টেস্টে চলতি বছরের 22 শে ফেব্রুয়ারি মুস্তাক আলি ট্রফির ম্যাচের  সময় পৃথ্বীর মূত্রে নিষিদ্ধ কাশির ওষুধের নমুনা ধরা পড়ে। মিলেছে নিষিদ্ধ ওষুধ টার্বুটালিন।

ওয়াডার নিষিদ্ধ ওষুধের তালিকায় রয়েছে সেটি। ফল স্বরূপ ভারতীয় বোর্ডের অ্যান্টি ডোপিং নিয়ম অনুসারে পৃথ্বী শ 15ই  নভেম্বর পর্যন্ত নির্বাসিত হয়েছেন আত্মা ভারতীয় বোর্ডের তরফ থেকে মঙ্গলবার সরকারি ভাবে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।গত 16 ই জুলাই পৃথ্বী শ এর বিরুদ্ধে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের আন্টি ডোপি বিভাগ। অন্যদিকে পৃথ্বী শ এই বিষয়ে নিজের মন্তব্য দিয়ে বলেন, তিনি জানতেন না বিশ্বের অ্যান্টি ডোপিং সংস্থা ‘‌ওয়াডা’‌র নিষিদ্ধ তালিকায় রয়েছে কাশির ওষুধ ‘টারবুটালাইন’।

পৃথ্বী নিজেও জানতেন না এই ধরনের ওষুধ খেলে খেলার পারফরমেন্স বৃদ্ধি পেতে পারে। কাশি হওয়ায় তিনি না জেনেই কাশির সাধারণ ওষুধ হিসেবে তা ব্যবহার করেছেন। কমিশন শুনেছে পথ্বীর বক্তব্য। কিন্তু নিয়ম অনুসারে তাঁকে সাসপেন্ড করতেও বাধ্য হয়েছে। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের অ্যান্টি ডোপিং নিয়ম ভঙ্গের নিয়ম অনুযায়ী দন্ডবিধির 2.1 ধারায় শাস্তি দেওয়া হয়েছে পৃথ্বীকে। এই শাস্তিতে উল্লেখ করে দেওয়া হয়েছে আগামী 15 নভেম্বর পর্যন্ত ভারতীয় ক্রিকেটের অধীনস্থ কোন রাজ্য সংস্থার হয়ে এমন কি কোন ক্লাবের হয়ে ও ক্রিকেট খেলতে পারবেন না পৃথ্বী। অর্থাৎ তাকে নির্বাচিত অবস্থায় 15 নভেম্বর মধ্যরাত পর্যন্ত কাটাতে হবে।নিয়ম অনুসারে শাস্তির মেয়াদ 8 মাসের হওয়ার কথা।

কিন্তু পৃথ্বী শ সঙ্গে সঙ্গে নিজের ভুল স্বীকার করায় ভারতীয় বোর্ডের অ্যান্টি ডোপিং সিস্টেম 10.10.2 ধারায় পেছনের তারিখ ধরে পৃথ্বীকে 22 ফেব্রুয়ারি তাঁর মূত্র–নমুনা সংগ্রহের দিন থেকে ধরে নিয়েছে। ফল স্বরূপ পৃথ্বীকে এবারের ঘরোয়া ক্রিকেটের বেশিরভাগ ম্যাচে খেলতে দেখা যাবে না। মাঝে কোমরের পেছনের অংশে চোট পাওয়ায় পৃথ্বীকে বেশ কিছুদিন ক্রিকেটের বাইরে থাকতে হয়। যে কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের টেস্ট সিরিজে তাঁর নাম বিবেচনা করা হয়নি। সত্যি, সব মিলিয়ে বেশ খারাপ সময় যাচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেটের উদীয়মান ক্রিকেটার পৃথ্বী শ–এর।