টেক নিউসনতুন খবরবিশেষলাইফ স্টাইল

ভারতকে ডিজিটাল ভাবে গড়ে তুলতে খুব শীঘ্রই ভারতে আসতে চলেছে 5G, দেখে নিন কবে আসতে চলেছে ভারতে এই ফাইভ জি..

ভারতবর্ষকে ডিজিটাল হিসাবে গড়ে তুলতে বদ্ধ পরিপক্ক হয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাই আগামী বছরের শুরুতেই দেশজুড়ে ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক চালু করতে চাইছেন মোদি সরকার। কিন্তু বর্তমান পরিকাঠামো নিয়ে তার বাস্তবায়ন কত দূর সম্ভব তাই নিয়ে সন্দিহান টেলিকম কর্তারা।

The Tower and Infrastructure Providers Association(Taipa) -এর মূখ্য সচিব তিলকরাজ দত্তর মতে প্রচুর পরিমাণ টাওয়ার এবং অপটিকাল ফাইবার তারের মাধ্যমে নেটওয়ার্কের ঘনত্ব বৃদ্ধি করতে পারলে তবেই দেশে 5G -এর সাফল্য সম্ভব। বিশেষজ্ঞ দের কাছ থেকে জানতে পারা গেছে ভারত বর্ষ আর ভিত্তিক নেটওয়াকের দিক থেকে অনেকখানি পিছিয়ে রয়েছে।

আর এই ফাইভ-জি নেটওয়ার্কের সুস্থ ভাবে চালু করতে দেশের ১০ কোটি কিলোমিটার পর্যন্ত অপটিক্যাল ফাইবার বসানোর প্রয়োজন আছে। কিন্তু সেখানে বর্তমানে বছরে মাত্র আড়াই কোটি কিলোমিটার ফাইবার বসানো হচ্ছে। আর তাই নিয়েই কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে টেলিকম কর্তাদের। তবে দ্রুতগতির নেটওয়ার্কের প্রয়োজনীয়তা তাকে সরকার প্রাধান্য দিয়ে দেখছে।

দেশজুড়ে বর্তমানে দেড় কোটি কিলোমিটার অপটিকাল ফাইবার আছে। ২০২২ সালের মধ্যে বর্তমানের তুলনায় প্রায় পাঁচ গুণ বেশি, অর্থাত্ সাড়ে সাত কোটি কিলোমিটার অপটিকাল ফাইবারের নেটওয়ার্ক গড়ে তোলার লক্ষ্যে রয়েছে টেলিকম মন্ত্রক। একই সঙ্গে রয়েছে ৬০ শতাংশ টাওয়ারকে এই নেটওয়ার্কে যুক্ত করার লক্ষ্য। বর্তমানে দেশের মাত্র ২২ শতাংশ টাওয়ার যুক্ত রয়েছে ফাইবার নেটওয়ার্কে। সেখানে প্রতিবেশী দেশ চিনের ৮০ শতাংশ টাওয়ার যুক্ত ফাইবার নেটওয়ার্কে।

অন্যদিকে, এই খারাপ সময়েও আশার আলো দেখছে ভারত সঞ্চার নিগম লিমিটেড। নিজেদের আট লক্ষ কিলোমিটারের ফাইবার নেটওয়ার্ক বিএসএনএল লিজ দিতে চাইছে অন্য কোম্পানিদের।

মোদী সরকার গত বছরের শেষে ন্যাশানাল ফাইবার অথোরিটি গঠন করার সিদ্ধান্ত নিলেও সেই ব্যাপারে এখনও কাজ এগোয়নি। সব মিলিয়ে ২০২২ -এর আগে দেশজুড়ে 5G চালু হওয়ার সম্ভাবনা নেই বলেই মনে করছেন টেলিকম কর্তারা।

Related Articles

Back to top button