তৃণমূল দলে বড় ভাঙ্গন! দল ছেড়ে এবার অর্জুনের হাত ধরে বিজেপিতে যোগদান করলেন 500 জন তৃণমূল কর্মী।

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূলের 42-এ 42 দখলের চ্যালেঞ্জকে বিফল করতে প্রস্তুত রাজ্যের বিরোধী দলগুলো। এককালে বামেদের চক্ষুশূল হয়ে উঠেছিল মমতা সরকার। কিন্তু গত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির কেন্দ্রীয় জয়ের পর রাজ্যেও আস্তানা গড়ে তুলেছে। আর গত দুবছরে বিজেপির রমরমা আরও বেড়েছ। বিশেষ করে যখন তৃণমূলের নেতা নেতৃত্ব বা মন্ত্রী আমলাদের দল বদলের পালা শুরু হল। তৃণমূলের একাধিক বিধায়কও ইতিমধ্যে চলে গিয়েছেন গেরুয়া শিবিরে। ফলে একভাগে হলেও কোনঠাসা তৃণমূল সরকার। আর অন্যদিকে অর্জুন সিং এর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরে বদলে গেছে ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলে রাজনীতির ভারসাম্য।

বিশেষ করে শ্যামনগর, নৈহাটির বিস্তীর্ণ এলাকা ও ভাটপাড়া এলাকায় তৃণমূলকে চোখ রাঙাচ্ছে বিজেপি। আর এই শিল্পা অঞ্চলে এবার বিজেপি শক্তিশালী হবে অর্জুনের হাত ধরে এতে আশাবাদী নেতৃত্ব।তবে এই আশা যে মিথ্যে নয় ফের একবার প্রমাণ হয়ে গেল বুধবার দিন। গতকাল অর্থাৎ বুধবার অর্জুন সিং এর হাত ধরে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলেন প্রায় 500 জন কর্মী। সূত্র অনুসারে জানতে পারা গেছে নৈহাটির মামুদপুর ও আমডাঙ্গা থেকে বিজেপিতে যোগ দিলেন তারা। এই কর্মীরা দলে যোগ দান করার পরই জানাই অনেকদিন ধরে তৃণমূলে তারা তাদের যোগ্য মর্যাদা পাচ্ছিলেন না, তারা তাই বিজেপিতে যোগ দিলেন অর্জুন সিং এর হাত ধরে।আপনাদের বলে রাখি এই দিন এক নির্বাচনী জনসভায় তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলেন এই 500 জন কর্মী।আর অন্য দিকে উত্তর 24 পরগনা জেলার তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক জানান অর্জুন সিং কে চাপে ফেলতে তার বিরুদ্ধে পুরো মন্ত্রীর কাছে অভিযোগ জানানো হবে এবং যাবতীয় দুর্নীতির তদন্ত করা হবে।

তবে এইসব হুমকি শুনে একেবারে দমে যাওয়ার পাত্র নন অর্জুন সিং পাল্টা চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে তিনি বলেন রাজ্য থেকে তৃণমূল সাম্রাজ্য ধ্বংস করে দেবেন।আর সেই লক্ষ্যে আরও একধাপ এগিয়ে চলেছেন অর্জুন সিং।