24 ঘন্টা পেরোনোর আগেই সিদ্ধান্ত বদল! শুরু করা যাবে না পড়ুয়াদের ভার্চুয়াল ক্লাস, শিক্ষামন্ত্রী জারি করলেন ভিডিও..

দেশজুড়ে করোনা সংক্রমণকে আটকানোর জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির তরফ থেকে গোটা দেশজুড়ে 21 দিনের জন্য লকডাউন ঘোষনা করা হয়েছিল যার ফলে রাজ্যের সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে শুরু করে স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পঠন-পাঠন আপাতত স্থগিত রাখা হয়েছে। তবে এরকম এক পরিস্থিতিতে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে ভার্চুয়াল ক্লাসের ব্যবস্থা করা হয়েছিল ছাত্র- ছাত্রীদের জন্য দূরদর্শন এর মাধ্যমে।

তবে এবার সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার 24 ঘণ্টার মধ্যেই বদলে দেওয়া হলো সেই সিদ্ধান্ত। শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান শুরু হওয়ার আগেই স্থগিত হয়ে গেল দুরদর্শন এর ভার্চুয়াল ক্লাস একথা তিনি একটি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে জানিয়েছেন। তার জারি করা এই ভিডিওতে তিনি জানিয়েছেন আগামী 7 থেকে 13 এপ্রিল পর্যন্ত দূরদর্শনের মাধ্যমে যে ভার্চুয়াল ক্লাস নেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছিল তা আর নেওয়া হবে না। এর পেছনের কারণ হিসেবে তিনি জানালেন শিক্ষকেরা যে সময় দিচ্ছে অন্যদিকে অভিভাবকেরা যে সময় চেয়েছেন এবং দূরদর্শন কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে যে সময় দেওয়া হচ্ছে তাতে মিলছে না আর এই কারণে ভার্চুয়াল ক্লাস আপাতত স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত যারা জানেন না তাদেরকে বলে রাখি এর আগে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল যে আগামী শিক্ষাবর্ষে প্রথম থেকে অষ্টম শ্রেণীর সকল পড়ুয়াদেরকে এরকমই পরের শ্রেণীতে উত্তীর্ণ করে দেওয়া হবে।এর পাশাপাশি নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পড়ুয়াদের জন্য ভার্চুয়াল ক্লাসের ব্যবস্থা করা হবে আগামী শুক্রবার দিন থেকে এমনটা জানানো হয়েছিল। এর পাশাপাশি শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও জানিয়েছিলেন যে আগামী 7 থেকে 13 এপ্রিল বিকেল চারটা থেকে পাঁচটা দুরদর্শনে বিভিন্ন ক্লাস করাবেন শিক্ষকেরা।

তারপর শিক্ষামন্ত্রী সেই বার্তা 24 ঘন্টা পার হবার আগেই আরো এক ভিডিও বার্তায় জানিয়ে দিলেন আপাতত ভার্চুয়াল ক্লাস শুরু করা যাচ্ছেনা। আর এটি শুরু না হওয়ার পেছনে যে কারণটি তিনি জানিয়েছেন সেটি হলো নিম্নরুপ শিক্ষকেরা যে সময় দিচ্ছেন আর অভিভাবকেরা সেসময় চাইছেন এবং দূর্দর্ষণ কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে সময় দেওয়া হচ্ছে তাতে রয়েছে অমিল ফলে ভার্চুয়াল ক্লাস আপাতত স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে ছাত্র-ছাত্রীদের এই ভার্চুয়াল ক্লাস পড়ানোর পাশাপাশি শিক্ষা মন্ত্রী জানিয়েছিলেন যদি এক্ষেত্রে ছাত্র-ছাত্রীদের কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে তারা বাংলা শিক্ষা পর্টালে ইমেইল করে অথবা হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে কিংবা ফোন করে প্রশ্ন করতে পারবে। এবং শিক্ষামন্ত্রী তরফ থেকে এই বিষয়টি নিয়ে একটি এডুকেশন হেল্প লাইন নাম্বারও চালু করা হয়েছিল এটি হলো 18001037033। তবে আপাতত স্থগিত রইল ভার্চুয়াল ক্লাস এর বিকল্প হিসাবে তিনি অন্য পথ খুঁজছেন একথাও জানান তিনি এই ভিডিওর মাধ্যমে।

More Stories
তাঁর নেতাজি প্রেমে জন্যই স্ত্রী – সন্তান ও ছেড়ে চলে গেছে তাকে, তবু এক ফোঁটা কমেনি নেতাজির জন্য তার প্রেম…