নতুন খবরবিশেষলাইফ স্টাইল

বিপদে রয়েছে 235 মিলিয়ন ইনস্টাগ্রাম ও ইউটিউব ব্যবহারকারীদের গুরুত্বপূর্ণ ডাটা, যার মধ্যে রয়েছে ইউজারদের..

প্রায় নিত্যদিন ইন্টারনেট বা স্মার্টফোন ইউজারদের তথ্য সুরক্ষিত রাখার ব্যাপার নিয়ে বিভিন্ন আশঙ্কা প্রকাশ্যে বেরিয়ে আসতেই থাকে। আর ইউজারদের ডাটা সুরক্ষা রাখার খাতিরে ভারত সরকার ইতিমধ্যে একটি পদক্ষেপ নিয়েছে যেখানে ভারত সরকারের তরফ থেকে অনেকগুলি চীনা অ্যাপ ব্যান করে দেওয়া হয়েছে ইতিমধ্যে যাদের মধ্যে ছিল Tik-Tok, wechat এর মতো চীনা অ্যাপ্লিকেশন যেগুলি ভারতীয় গোয়েন্দা সূত্রের ডাটা চুরি করার অভিযোগ প্রকাশ্যে এসেছিল।

 

তবে এখন যে তথ্যটি বেরিয়ে এসেছে সেটি রীতিমতো চমকে দেবার মতো কারণ এবার ইউজারদের ডাটা চুরি করার অভিযোগ উঠেছে ইনস্টাগ্রাম এবং ইউটিউব এর মত জনপ্রিয় প্লাটফর্মের অ্যাপ গুলির বিরুদ্ধে।প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী জানতে পারে যে প্রায় 250 মিলিয়ন ইউজার দের সোশ্যাল মিডিয়া ডাটা ফাঁস হয়ে গেছে যার মধ্যে ইউজারদের অন্তর্ভুক্ত রয়েছে কন্টাক্ট ডিটেইলস, নাম, ছবি ইত্যাদি। আর প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী এটাও জানতে পারা যাচ্ছে Deep Social নামের একটি কোম্পানি ইনস্টাগ্রাম এবং ইউটিউবে ডাটা বেস থেকে ইউজারদের ওয়েব স্ক্যাপড ডাটা অ্যাক্সেস করেছে।

যারা জানেনা তাদের উদ্দেশ্যে বলে রাখি এই ওয়েব ডাটা স্ক্যাপিং হচ্ছে আসলে বিভিন্ন সাইটের পেজ থেকে ডাটা সংগ্রহ করার এক পদ্ধতি। যদিও এই পদ্ধতিটি বেআইনি নয় তবে ইউজারদের গোপনীয়তার জন্য এটি কোনো ভাবেই সম্মত নয়। এই বিষয়ে সিকিউরিটি রিসার্চার অফ ডিয়াচেনকো জানিয়েছে ইনস্টাগ্রাম এবং ইউটিউবে ডেটা বেসের অনুরূপ তিনটি কপি 1 লা আগস্টের মধ্যে ফাঁস হয়ে গিয়েছে। আর এই ডাটাবেসের মাধ্যমেই ইউজারদের প্রোফাইলের নাম,ছবি, বয়স,লিঙ্গ অ্যাকাউন্ট এর বিবরণ ফলোয়ার ইত্যাদি তথ্য ইমেল আইডি প্রকাশ পেয়েছে।

আর এখন আশঙ্কা করা হচ্ছে এই ফাঁস হয়ে যাওয়া তথ্যগুলি স্ক্যাম করার উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হতে পারে। যদিও Deep Social এর সঙ্গে এই বিষয়ে যোগাযোগ করা হয় এবং জানতে পারা যায় এটি একটি হংকং ভিত্তিক ফার্ম যেটি সোশ্যাল ডাটা দ্বারা পরিচালিত হয়ে থাকে। তার এই গোটা বিষয়টিকে তারা স্বীকার করে নিয়েছে এবং এর access বর্তমানে বন্ধ করে দিয়েছে। আর সংস্থাটি ইতিমধ্যে Deep Social এর সঙ্গে সমস্ত রকম যোগাযোগ ছিন্ন করে দিয়েছে, তবে Deep Social এ বিষয়ে দ্যা নেক্সট ওয়েবকে এ তথ্য দিয়েছে সেখানে তারা জানিয়েছে কোনমতেই গোপনে ডেটা অ্যাক্সেস করা হয়নি। যদিও গত বছর এরকমই এক ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছিল যেখানে লক্ষ লক্ষ ফেসবুক ইউজারদের ডাটা ফাঁস হয়ে গিয়েছিল।

 

Related Articles

Back to top button