দেশজুড়ে জারি Lockdown, এই 21 দিনে কোন কোন পরিষেবা পাবেন আর কোন কোন পরিষেবা পাবেন না-কেন্দ্র সরকার

গতকাল 24 শে মার্চ রাত্রি আটটার সময় ফের আরেকবার জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এবং করণা ভাইরাসের সংক্রমণ ভাঙার জন্য সাধারণ মানুষের কাছে অনুরোধ করেন। এদিন মধ্যরাত থেকে সারাদেশে লকডাউন ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী। এই লকডাউন চলতে থাকবে তিন সপ্তাহ অর্থাৎ 21 দিন পর্যন্ত। 21 দিন পর্যন্ত মানুষকে সংযম ধৈর্যের সঙ্গে বাড়িতে বসে থাকার অনুরোধ জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন করোনা ঠেকাতে এছাড়া আর কোনো রাস্তা নেই আমাদের কাছে।

প্রধানমন্ত্রী এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন দেশের সাধারণ মানুষ। কিন্তু এর পরেও মানুষের মনে একটা প্রশ্ন থেকে যাচ্ছে যে, বাড়ির বাইরে না বেরোলে মানুষের পেট চলবে কি করে? প্রধানমন্ত্রী বক্তৃতা শেষ হওয়ার পর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে এ বিষয়ে জানানো হয়, এই লক ডাউন এর সময় কী কী খোলা থাকবে আর কী কী বন্ধ থাকবে।
1. এতদিন ধরে যেমন সমস্ত ট্রেন বন্ধ ছিল তেমনি এখনো ট্রেনগুলো বন্ধ থাকবে।
2. দেশের কোথাও কোন সড়কপথে পরিবহন চলবে না, শুধুমাত্র পণ্যবাহী গাড়ি ছাড়া।

3. বাস, ট্যাক্সি, অটো সমস্ত গণপরিবহন ব্যবস্থা বন্ধ থাকবে।
4. নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস নয় এমন দোকান, অফিস, কারখানা সমস্ত কিছু বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে।
5. হাসপাতাল ও অন্যান্য জরুরি পরিষেবার গাড়ি যেমন দমকলের গাড়ি, অ্যাম্বুলেন্স ইত্যাদি চলবে।
6. সমস্ত হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য পরিষেবা কেন্দ্র খোলা থাকবে।
7. টেলিকম ও তথ্যপ্রযুক্তি কেন্দ্র খোলা থাকবে।
8. খাবার বিক্রি করার দোকান খোলা থাকবে এর মধ্যে সবজির দোকান রয়েছে এছাড়া খোলা থাকছে রেশন দোকান।
9. মাছ, মাংসের বাজার খোলা থাকবে।

10. ওষুধের দোকান এবং ওষুধের কারখানা দুটোই খোলা থাকবে।
11. খোলা থাকছে সংবাদমাধ্যমের দপ্তর।
12. পেট্রল পাম্প এবং এলপিজি গ্যাস এর দোকান খোলা থাকছে এবং সরবরাহ চালু থাকবে। তবে এতকিছুর পরেও খুবই জরুরী দরকার ছাড়া বাইরে বেরোতে মানা করা হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে। যেহেতু এখনও পর্যন্ত এই ভাইরাসের কোনো প্রতিষেধক আবিষ্কৃত হয়নি সেহেতু এই ভাইরাস ঠেকাতে আর কোনো রাস্তা নেই। তাই দেশের জনতার কাছে প্রধানমন্ত্রী বিনীত নিবেদন করেছেন যাতে সকলেই এই লকডাউনকে মেনে চলেন 21 দিন পর্যন্ত না হলে আমাদের দেশ আরো 21 বছর পিছিয়ে যাবে একথা জানিয়ে দেন তিনি।