বাবা পোলিও আক্রান্ত! দাবা খেলাতে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন খেলোয়াড়কে হারিয়ে নতুন রেকর্ড গড়লো ১৬ বছরের ছেলে

দাবা ভারতের একটি বিখ্যাত খেলা, যেটি ছোট বাচ্চা থেকে শুরু করে যুবক এবং বৃদ্ধ বয়সের লোকেরা খেলতে পছন্দ করে। এই কারণেই দাবা শুধুমাত্র জাতীয় পর্যায়েই নয়, আন্তর্জাতিক পর্যায়েও একটি অত্যন্ত প্রিয় খেলা বলে বিবেচিত হয়, যার জন্য টুর্নামেন্টেরও আয়োজন করা হয়। সম্প্রতি, একটি ১৬ বছর বয়সী শিশু বা বলা যেতে পারে একজন দাবা খেলোয়াড় আর প্রজ্ঞানান্ধা, অনলাইন দ্রুত দাবা টুর্নামেন্ট এয়ারথিংস মাস্টার্সে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ম্যাগনাস কার্লসেনকে পরাজিত করেন এবং এই দক্ষতার কারণে তিনি রাতারাতি তারকা হয়ে উঠেছেন।

চেন্নাইতে বসবাসকারী আর প্রজ্ঞানান্ধা  মাত্র ৩ বছর বয়সে দাবা খেলা শুরু করেন। দাবাতে তাঁর আগ্রহ বেড়ে যায় কারণ তাঁর বড় বোন বৈশালী দাবা খেলতেন এবং পরিবারের সদস্যদের সাথে এই বিষয়ে কথা বলতেন। বৈশালীর বয়স যখন ৬ বছর, তিনি তাঁর বেশিরভাগ সময় টিভিতে কার্টুন দেখে কাটাতেন। এমন পরিস্থিতিতে তার বাবা মা চেয়েছিলেন, তিনি টিভি থেকে দূরে থাকবেন এবং জীবনে ভালো কিছু শিখবেন, তাই তাঁরা বৈশালীকে দাবা ও ড্রয়িং ক্লাসে ভর্তি করান। এখান থেকেই বৈশালী দাবা খেলা শুরু করেন এবং তাঁকে দেখে আর প্রজ্ঞানান্ধার দাবার প্রতি আগ্রহ বেড়ে যায় এবং তিনি খেলা আয়ত্ত করেন।

দাবাতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ম্যাগনাস কার্লসেনকে পরাজিত করার কৃতিত্ব অর্জনকারী তিন ভারতীয় খেলোয়াড়ের তালিকায় প্রজ্ঞানান্ধার নাম অন্তর্ভুক্ত হয়েছে এবং তিনি গ্র্যান্ডমাস্টার খেতাব পেয়েছেন এবং পঞ্চম স্থানে রয়েছেন। এর পাশাপাশি তিনি ভারতের সর্বকনিষ্ঠ দাবা চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন, যেখানে তিনি বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড়ের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন। তাঁর আগে বিশ্বনাথন আনন্দ এবং পি হরিকৃষ্ণও দাবা টুর্নামেন্টে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন কার্লসেনকে হারিয়েছেন। এর আগেও প্রজ্ঞানান্ধা ২০১৮ সালে একটি জাতীয় স্তরের দাবা টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছিলেন এবং প্রতিপক্ষকে পরাজিত করে জিতেছিলেন। আর প্রজ্ঞানান্ধা তাঁর খেলাধুলার মাধ্যমে শুধু নিজের পরিবারের জন্যই খ্যাতি আনেননি, দেশের জন্য গর্বও বয়ে এনেছেন।

আর প্রজ্ঞানান্ধা দাবা খেলার পাশাপাশি ক্রিকেট খেলতে খুব পছন্দ করেন। পড়াশুনা ও দাবা ক্লাস থেকে সময় পেলেই ক্রিকেট ম্যাচ খেলতে মাঠের দিকে ছুটে যান। প্রগনানন্দ বলেন যে, ক্রিকেট দেখা এবং খেলা তাঁকে স্বস্তি দেয়, তাই তিনি যখন দাবা টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছিলেন, তখন তিনি ভারত ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মধ্যে শেষ টি টোয়েন্টি ম্যাচ দেখেছিলেন। সেই ম্যাচে ভারত, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে জিতেছিল, এরপর আর প্রজ্ঞানান্ধাও দাবা খেলায় বিশ্ব চ্যাম্পিয়নকে পরাজিত করে দাবা খেলায় ইতিহাস তৈরি করেছেন।