নতুন খবরবিশেষভারতীয় সেনা

বড় খবর : সেনার হানায় খতম হল 10 নকশাল জঙ্গি,চলছে তল্লাশি মৃতের সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা..

ছত্রিশগড়ের বিজপুরে নকশাল ও সেনাবাহিনীর সংঘর্ষে সেনার গুলিতে খতম করা হলো 10 জন নকশাল জঙ্গিকে।এবং সেনা জওয়ানেরা সেই ঘটনাস্থল থেকে প্রচুর পরিমাণে অস্ত্রশস্ত্র ও বিস্ফোরক উদ্ধার করেন। গোটা এলাকায় গুলির আওয়াজে ভরে উঠেছিল শোনা যাচ্ছে যে নকশাল জঙ্গিদের সাথে সেনাদের সংঘর্ষ অনেক সময় ধরে চলছিল। এনকাউন্টার শেষ হওয়ার পর সেনা জওয়ানেরা সেখানে তল্লাশি চালায় এবং জঙ্গিদের মৃতদেহের সাথে বিস্ফোটকের প্রচুর পরিমাণে অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার করেন সেখান থেকে। বিজপুর এর পুলিশ সুপার মোহিত গর্গ বৃহস্পতিবার মিডিয়াকে এই সম্বন্ধে তথ্য দিতে গিয়ে বলেন ভেরোমগড় থানার মাড় এলাকায় বৃহস্পতিবার সকালে সেনা জওয়ানরা যখন পেট্রোলিং করছিলেন হঠাৎ তখনই তাদের ওপর কিছু নকশাল জঙ্গিরা গুলি চালায় নকশাল জঙ্গিদের পাল্টা জবাব দিতে গুলি চালাতে বাধ্য হয় সেনা জওয়ানেরা।

সেনা জওয়ান এর এই পাল্টা হামলায় খতম হয় 10 নকশাল জঙ্গি।পরবর্তীকালে তাদের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয় এবং তাদের কাছ থেকে প্রচুর পরিমাণে অস্ত্রশস্ত্র গোলাবারুদ ও উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এখনো জারি রয়েছে তল্লাশি অভিযান। সেনা জওয়ানদের সূত্র অনুসারে জানতে পারা গেছে নকশায় জঙ্গিদের মৃতের সংখ্যা এখনো বাড়তে পারে। কারণ সেনা জওয়ানদের আশঙ্কা আরও কিছু নকশাল জঙ্গি হয়তো কোথাও লুকিয়ে আছে।বিজপুর পুলিশ সূত্রে খবর অনুযায়ী জানতে পারা যায় গতকাল রাতে ইন্দ্রাবতী নদীর আশে পাশে কিছু নকশাল জঙ্গিদের থাকার খবর পায় সেনা এবং পুলিশ অধিকার তারা। আর তারই দরুন সেই পুলিশ এবং সেনা যৌথ অভিযান চালিয়ে সেখানে তল্লাশির জন্য যায়। আর সেই তল্লাসী চলাকালীনই কিছু জঙ্গি সেনাদের ওপর গুলি চালাতে শুরু করে দেয়।তারই পাল্টা জবাব দিতে সেনা জওয়ান এর গুলিতে 10 নকশাল জঙ্গিকে খতম করে দেওয়া হয়। পুরো এলাকাকে ঘিরে এখনো রয়েছে সেনাবাহিনী।

 

তবে এখনো বেশ কিছু নকশাল জঙ্গিদের মৃতদেহ পাওয়া যেতে পারে বলে আশঙ্কা জানিয়েছে সেনা জওয়ানেরা।শুধুমাত্র এটাই সেনা জওয়ানদের হাতে প্রথম সফলতা নয় এর আগেও বহুবার নকশাল জঙ্গিদের প্রবাহিত এলাকায় গিয়ে তাদের নিজের হাতে দমন করছেন ভারতীয় সেনাবাহিনী। আরো নতুন নতুন খবরের আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের ওয়েব পোর্টালটিতে।

Related Articles

Back to top button