দেশনতুন খবর

ভারত সরকারের নতুন প্রজেক্ট যার মাধ্যমে উপকৃত হবে দেশের প্রায় ২ লক্ষ ৫০ হাজার গ্রাম। ২০১৯ সালের মার্চ মাসের মধ্যেই হতে চলেছে…

নমস্কার বন্ধুরা আজ আমি আপনাদের সাথে যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করতে চলেছি সেটি মুহূর্তে ভারতের খুবই একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। সেটা হচ্ছে যে “ইন্ডিয়ান নেট প্রজেক্ট” এটি ভারত সরকারের একটা খুব গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্প। যেটি ভারত সরকার খুবই তাড়াতাড়ি ইন্ডিয়াতে চালু করতে চলেছে। এই প্রোজেক্টের মূল টার্গেট হচ্ছে ভারত এবং ইন্ডিয়ার মধ্যে যে পার্থক্য সেটা দূর করা। নিশ্চয়ই আপনারা বুঝতে পারলেন না যে ভারত এবং ইন্ডিয়ার মাঝে কি এমন পার্থক্য রয়েছে। তাই আসুন আজ আপনাদের সাথে এই প্রকল্পটি নিয়ে বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করি।

ভারত সরকার ইন্ডিয়া এবং ভারতের মধ্যে পার্থক্য দূর করার জন্য যে প্রজেক্ট চালু করেছেন সেখানে এটাই বলা হয়েছে যে দেশের প্রতিটি গ্রামে যেখানে এখনও পর্যন্ত ইন্টারনেট ব্যবস্থা প্রচলন হয়নি সেই প্রতিটি গ্রামে ভারত সরকারের কর্তৃক লাগানো হবে ইন্টারনেট কানেকশনে। যার মাধ্যমে সেই সকল গ্রামের মানুষজন সহজেই ব্যবহার করতে পারবেন ইন্টারনেট। কিন্তু কেন ভারত সরকার হঠাৎ করে প্রতিটি গ্রামে ইন্টারনেট ব্যবস্থা চালু করার সিদ্ধান্ত নিলেন সেই ব্যাপারে জানতে গিয়ে আমরা এই তথ্য পেলাম যে, ভারত সরকার যে নতুন প্রজেক্ট চালু করেছেন “মেক ইন ইন্ডিয়া” যার মাধ্যমে ভারত সরকার করতে চাইছেন পুরো ভারতকে ডিজিটাল অর্থাৎ “ডিজিটাল ভারত” তৈরি করার জন্যই মূলত সরকারের তরফ থেকে এই পুরো দেশজুড়ে ইন্টারনেট সংযোগের প্রচেষ্টা শুরু করা হয়েছে।

আপনাদের জানিয়ে রাখি ইন্ডিয়া অর্থাৎ ইন্ডিয়া বলতে যেটা বোঝানো হচ্ছে সেটা হচ্ছে যে দেশের বিভিন্ন বড় বড় জায়গা অর্থাৎ যে সকল জায়গায় খুব সহজেই ইন্টারনেট সংযোগ থাকে এবং ইন্টারনেটের খুব স্পীড রয়েছে। অপরদিকে ভারত বলা হচ্ছে দেশের সেই সমস্ত জায়গা গুলি কে অর্থাৎ সেই সমস্ত গ্রামগুলি যেখানে এখনও পর্যন্ত ইন্টারনেট ব্যবস্থা পুরোপুরি ভাবে সংযোগ হয়নি। অর্থাৎ যেখানের মানুষ এখনো পর্যন্ত ইন্টারনেটে সঙ্গে পুরোপুরি যুক্ত হতে পারে নি।আপনাদের আরও একটা বিশেষ তথ্য জানিয়ে রাখি সেটা হচ্ছে যে, ভারত সরকারের তরফে যে ইন্টারনেট ব্যবস্থা দেওয়া হবে সেটা হবে খুবই কম মূল্যে অর্থাৎ খুব কম দামে পেয়ে যাবে খুব দ্রুত গতিসম্পন্ন ইন্টারনেট।

এই ইন্টারনেট শুধুমাত্র গ্রামের মানুষই ব্যবহার করতে পারবেন না বরং সেখানে অবস্থিত স্কুল, কলেজ এমনকি হাসপাতালে জন্য ব্যবহার করা যাবে। এর ফলে ভারত সরকার যে সমস্ত প্রকল্প গুলি চালু করবে সেগুলি খুব সহজেই হাসপাতালে, স্কুল-কলেজগুলো তে পৌঁছে যাবে। তারা খুব সহজেই জানতে পারবেন সরকারের ঘোষণা গুলি সম্পর্কে।

এই প্রজেক্টটির মাধ্যমে ইন্টারনেট সংযোগ করা হবে দেশের প্রায় ২ লক্ষ ৫০ হাজার গ্রামে। এবং এই প্রযুক্তি সম্পন্ন করার কথা হয়েছে আগামী বছরে অর্থাৎ ২০১৯ সালের মার্চ মাসের মধ্যে। এই ইন্টারনেট ব্যবস্থার সংযোগ করার জন্য যে খরচ হবে সেই খরচের প্রথম ছয় মাস বহন করবে বিএসএনএল কর্তৃপক্ষ। এবং তারপর ছ-মাসের সমস্ত খরচ বহন করবে দেশের কেন্দ্রীয় সরকার।

আপনাদের জানিয়ে রাখি যে ইন্টারনেট ব্যবস্থা সংযোগের সময় প্রথমে কিছুদিন ফ্রী সংযোগ দেওয়া হবে এবং তার পরে মাসিক প্যাকেজের মাধ্যমে সংযোগ দেওয়া হবে। এর মাধ্যমে উপকৃত হবেন প্রায় লক্ষ গ্রামের মানুষজন, স্কুল, কলেজ, হাসপাতাল এটাই ধারণা করা হচ্ছে।

এই মুহূর্তে আপনাদের গ্রাম কি এই প্রজেক্টের আওতাভুক্ত হয়েছে। যদি হয়ে থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে আমাদের জানান। এবং এই তথ্যটি আপনাদের বন্ধু এবং পরিবারের সাথে শেয়ার করুন যাতে উনারাও সরকারের সমস্ত প্রকল্পের সাথে পরিচিত হতে পারে।

#অগ্নিপুত্র

Related Articles

Back to top button