চীনা কম্পানি Oppo/Vivo কে বাদ দিয়ে BCCI এর স্পন্সর রতনজীর টাটা (Tata)?

সম্প্রতি বেশ কয়েকদিন ধরেই লাদাখ সীমান্তে ভারত- চীনের মধ্যে একাধিক বিবাদ হচ্ছে। গত সোমবার দিন ভারত এবং চীন সেনাদের সংঘর্ষে এদিন ভারতের 20 জন জাওয়ান শহীদ হন। তবে এদিন সংঘর্ষে ছেড়ে কথা বলেনি ভারতীয় সেনারা। তারাও পাল্টা জবাব দিয়েছে চীনের সেনাদের। এই ঘটনার পর থেকেই সারা দেশ জুড়ে চীনা পণ্য বয়কট করা নিয়ে ঝড় উঠেছে। এছাড়া ও করোনা ভাইরাস ছড়ানোর কারণে সারা বিশ্ব এখন চীনের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে। গোটা বিশ্ব এখন চীনকে শায়েস্তা করার জন্য তারাও উঠে পড়ে লেগেছে।

যার জেরে ভারতের ব্যবসায়িক – The Confederation of India Traders চীনা পণ্য বয়কট করার ডাক দিয়েছে। শুধু তাই নয় এবার চীনতে বয়কট করার জন্য ডাক উঠেছে গোটা ভারত জুড়ে যার ফলে সমস্ত রকমের চীনা কোম্পানি থেকে আরম্ভ করে চীনা পণ্য সামগ্রী বয়কটের ডাক দিয়েছে সারা ভারত। তবে অন্যদিকে যখন এই প্রশ্ন BCCI এর কাছে করা হয় তখন তারা জানান চীনা কম্পানি গুলি ভারতের ক্রিকেটে অনেক টাকা ইনভেস্টমেন্ট করে এবং তাদের কাছ থেকে টাকা নিলে ভারতের কোন ক্ষতি নেই।

তবে বিসিসিআইয়ের এরকম এক সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করতে দেখা যায় ভারতের অসংখ্য মানুষকে। যাদের দাবি এই চীনের কোম্পানিগুলির কাছ থেকে টাকা নিলে তাদের কে প্রমোট করতে হয় অর্থাৎ ভারতীয় জার্সিতে লেখা থাকে ওপো (OPPO) অথবা আইপিএল ট্রফি স্পন্সরের লেখা থাকে ভিভো (VIVO)। তাই এই চীনা কম্পানি গুলির প্রচার এর বিরোধিতা করতে দেখা যায় ভারতীয়দের। অন্যদিকে এরকম এক অবস্থায় অসংখ্য ভারতবাসী চাই যে ভারতীয় ক্রিকেটের এই স্পন্সর যেন করা হয় রতন টাটার কোম্পানিকে।

যেমনটা আমরা জানি রতন টাটা শুধুমাত্র একজন ব্যবসায়ী হিসেবে নয় একজন দেশভক্ত হিসাবেও অতি পরিচিত ব্যাক্তি যাকে দেশের মানুষেরা অসংখ্য ভালোবাসেন। তাছাড়া এই কোম্পানি চীনা কম্পানি গুলির তুলনায় যে কম টাকা দেবে তা নয় যার জন্য রতন টাটার কোম্পানিকে বিসিসিআইয়ের স্পন্সর করা উচিৎ এমনটাই দাবি উঠছে একাধিক ক্ষেত্রে।তাছাড়া এই মুহূর্তে প্রত্যেকে দেশভক্ত ভারতীয় এটাই চাইছে যে ভারতীয় ক্রিকেটের স্পন্সর করা হোক দেশকে অনুপ্রাণিত করা টাটা গোষ্ঠীকেই। আর এরকম দাবি যদি উঠতে থাকে তাহলে খুব সম্ভবত আগামী দিনে টাটা গোষ্ঠীই হতে পারে ভারতীয় ক্রিকেটের স্পন্সার এমনটাই মনে করা হচ্ছে।