দেশনতুন খবর

অজিত ডোভাল পাকিস্তানে মুসলিম সেজে গুপ্তচর হিসেবে থাকার সময় এক মৌলানা ধরে ফেলেছিলেন, তারপর তিনি…

বহুকাল আগে রাজা রাও গুপ্তচরের ব্যবহার করে তাদের সাম্রাজ্যকে রক্ষা করত। এই গুপ্তচরের ব্যবহার বর্তমান সময়েও প্রচুর রয়েছে। সমস্ত দেশেই গুপ্তচর ব্যবহার করে তাদের দেশকে বাঁচাবার চেষ্টা করে। অনেক গুপ্তচরের কাহিনী প্রাচীন গ্রন্থ তোলা হয়েছে যার ফলে সাম্রাজ্য বা দেশ বা রাজ্য বেঁচে গেছে। এবার আপনাদের ভারতের সুপার গোয়েন্দা এজেন্ট অজিত ডোভালের কথা জানাবো। আপনারা হয়তো অনেকেই এ গোয়েন্দার নাম প্রথম শুনলেন,কিন্তু পাকিস্তানি কট্টর পন্থীরা এই নাম শুনলে রীতিমত ভয় পেয়ে যান। অজিত ডোভালই এমন গোয়েন্দা  তিনি একমাত্র পাকিস্তানে গুপ্তচর হিসেবে সাত বছর কাটিয়েছিলেন।

আশ্চর্য বিষয় হলো তিনি ওখানে মুসলমান হিসেবেই সাত বছর কাটিয়েছিলেন এবং ভারতকে নানান গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছিলেন। নরেন্দ্র মোদির সব থেকে ঘনিষ্ঠ পরামর্শদাতা হলো এই গোয়েন্দা অজিত ডোভাল। একবার এই যুবককে গোয়েন্দারাও প্রশ্ন করেছিলেন আপনি যে এতদিন পাকিস্তানে ছিলেন আপনাকে কোন ধর্ম সঙ্কটে পড়তে হয়নি? বা আপনি ওখানে কখনো ধরা পড়েনি? এর উত্তরে ভারতীয় গোয়েন্দা অজিত ডোভাল বলেন, “আমি একবার যখন পাকিস্তানের লাহোরের মসজিদ থেকে বের হচ্ছিলাম তখন এক সাদা দাড়ি ওয়ালা ব্যক্তি আমাকে দেখে নিজের দিকে ডাকেন।

দিয়ে আমাকে বলেন তুমি একজন হিন্দু, এই কথা শুনে আমি পুরো অবাক হয়ে যায়। সঙ্গে সঙ্গে আমি নিজেকে সামলালাম, তারপর ওই ব্যক্তি বলেন তোমার কানে ফুটো দেখে বুঝতে পেরেছি তুমি হিন্দু।” তারপর ওই ব্যক্তি অজিতকে নির্দেশ দেন তিনি যেন কানের ফুটোটা প্লাস্টিক সার্জারি করিয়ে নেন। তারপর ওই ব্যক্তি অজিতকে একটি রুমে নিয়ে গিয়ে বলেন আমিও হিন্দু, আমার সমস্ত পরিবারকে পাকিস্তানের কট্টরপন্থীরা মেরে ফেলেছে। আমি কোনরকমে বেঁচে পালিয়েছি। তারপর ব্যক্তিটি বলেন আমাকে এখানে সবাই মুসলিম ফকির ভাবে। তারপর ওই ব্যক্তিটি অজিত দোভাল কে নিয়ে গিয়ে শিব ও দুর্গার মূর্তি দেখান যেগুলি তিনি লুকিয়ে লুকিয়ে পুজো করতেন। অজিত বলতে চেয়েছেন যে 7 বছরে পাকিস্তানের তাকে কেউ চিনতে পারেননি এক হিন্দু ছাড়া।

আরো এরকম নতুন নতুন খবর আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের ওয়েব পোর্টালটিতে।

Related Articles

Back to top button